শিরোনাম:
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ন ১৪২৯
---

Newsadvance24
বৃহস্পতিবার ● ১৭ নভেম্বর ২০২২
প্রথম পাতা » মতামত » কমলনগরে বালু খেকোদের মহাউৎসব, উপকূল বাঁধ হুমকির মুখে
প্রথম পাতা » মতামত » কমলনগরে বালু খেকোদের মহাউৎসব, উপকূল বাঁধ হুমকির মুখে
১৫১ বার পঠিত
বৃহস্পতিবার ● ১৭ নভেম্বর ২০২২
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

কমলনগরে বালু খেকোদের মহাউৎসব, উপকূল বাঁধ হুমকির মুখে

শিব্বির মাহমুদ দেওয়ান

---

দুঃখ পিছু ছাড়ছেনা ভাগ্যহত কমলনগরবাসীর। জনপ্রত্যাশা প্রাপ্তি প্রত্যাশার বিত্তে আটকা। ঝুলে আছে উপকূল বাঁধ। হচ্ছে হবে এই মর্মে অপেক্ষা সুদীর্ঘ। জনগনের আশার চরে মেঘনার বুকে জেগে উঠেছে বালুচর। সেই চর থেকে বালু উত্তোলন করতে বালু খেকোদের দৌড়ঝাঁপ লক্ষ্মনীয়। ফলে হুমকিতে কমলনগর উপকূল বাঁধ। কমলনগর রক্ষায় জনগন আপোষহীন মনেভাবে ঐক্যবদ্ধ।
যেখানে বাঁধই ঝুঁকিপূর্ন সেখানে বালু উত্তোলন ও বিক্রি অতঃপর ব্যবসা কার স্বার্থে।
এরা কারা মাতৃভূমির সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করে।
শুনা যায় এরা একটি সিন্ডিকেট। ব্যাক্তি স্বার্থ উদ্ধারই এদের মুল লক্ষ্য। কোন এক বাসভবনে এদের গোপন বৈঠক হয়েছে। কারা কলকাঠি নাড়ছে প্রকাশ্য আর অপ্রকাশ্যে জনগন জেনে গেছে।
বালু উত্তোলন প্রতিকার চেয়ে কমলনগর ইউএনও মহোদয় লক্ষ্মীপুর ডিসি মহোদয় কে স্মারক লিপি প্রদান করা হয়েছে।
অবহিত করা হয়েছে সাংবাদিকদেরকে ও। চায়ের টেবিলে চা ছাড়াই গরম তাজা খবর চর থেকে বালু উত্তোলন।
হুমকিতে কমলনগর উপকূল বাঁধ। আশা করি জনদাবি পূরনে প্রতিকার মিলবে। সারা বাংলাদেশে অবকাঠামো উন্নয়নে কাজ হচ্ছে। কমলনগরে বালু অজুহাত। আর এই অজুহাতকে পুঁজি করে বালু খেকোরা বেপরোয়া।
ভাঙ্গনকবলিত এই জনপথ রক্ষায় জনগন কার উপর নির্ভর করবে। কেউ কি নেই। নাকি দিবালোকে জনতার স্বপ্ন ভঙ্গ করে অনিয়ামক লীলা খেলা খেলে যাবে অসাধুরা।
ভাঙ্গন খেলা চলছে। লীলা খেলা ও চলমান।
দুই খেলায় জনমনে দীর্ঘশ্বাস।
প্রতিকার জরুরী।
প্রতিকার মিলবে তো। এই চিন্তা অশুভ হয়ে জনতার কাঁধে ভর করছে। জনতার দাবির সাথে যারা দ্বিমত পোষন করে বালু উত্তোলন খেলায় মেতেছে তাদের শুভ বুদ্ধির উদয় হোক। রক্ষা হোক মাতৃভূমি কমলনগর। নিরাপদ আবাসভূমিতে জনগন শান্তিতে নিদ্রাছন্ন থাকুক মায়া মামতায় মানবতায় ভালোবাসায়।
কমলনগর উপজেলার সাবেক সাহেবের হাট ইউনিয়নের মাতাব্বর নগরের চর কটরিয়া সফিক গন্জ চর কেঁকড়া সাহেবের হাট বাজার তালতুলি বাজার ভেঙ্গে যাওয়া ভূমি তে চর জেগেছে।
বালু খেকোরা জাগ্রত চর থেকে বালু উত্তোলনে মেতে উঠেছে। গত কয়েকদিন ধরে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করে যাচ্ছে। বিষয়টি জনমনে ভীতির সঞ্চার করেছে। প্রতিবাদে জনগন সোচ্চার। এই অসৎ উদ্দেশ্য রুখে দিতে জনগন বদ্ধপরিকর।
নদী ড্রেজিং আর বালু উত্তোলন এক কথা নয়।
এখানে বালু উত্তোলন মানে ব্যবসা নদী শাসন নয়।
বিষয়টি প্রশাসনের দৃষ্টি কাম্য।
উক্ত বিষয় নিয়ে যে কোন সময় ঘটতে পারে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা।
কে নেবে তার দায়ভার বিষয়টি ভাবনার বিষয়।
জনকল্যাণে দায়িত্ব বোধ হোক প্রতিকারের মাধ্যম।

-সমাজকর্মী-





আর্কাইভ