শিরোনাম:
ঢাকা, বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

Newsadvance24
বুধবার ● ২০ এপ্রিল ২০২২
প্রথম পাতা » চট্টগ্রাম » কমলনগরে ভূয়া ভোটারে গভর্ণিং বডির নির্বাচনের চেষ্টা, স্থগিত
প্রথম পাতা » চট্টগ্রাম » কমলনগরে ভূয়া ভোটারে গভর্ণিং বডির নির্বাচনের চেষ্টা, স্থগিত
২৯২ বার পঠিত
বুধবার ● ২০ এপ্রিল ২০২২
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

কমলনগরে ভূয়া ভোটারে গভর্ণিং বডির নির্বাচনের চেষ্টা, স্থগিত

নিজস্ব প্রতিনিধি, নিউজ এ্যাডভান্স

 

---

কমলনগর (লক্ষ্মীপুর)  : লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে তোয়াহা স্মৃতি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজের গভর্নিং বডির নির্বাচনে ভূয়া ভোটারে ভোট গ্রহণের চেষ্টায় অবশেষে নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। জেলা প্রশাসক বরাবরে অভিযোগের ভিত্তিতে সোমবার (১৮এপ্রিল) বিকেলে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মো. তৌহিদুল ইসলাম এ ভোট স্থগিত করেন। এর আগে রোববার (১৭এপ্রিল) আব্দুর রাজ্জাক নামে এক প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী জেলা প্রশাসক বরাবর ভোটার তালিকায় অনিয়মসহ বিভিন্ন অভিযোগ এনে একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, চুড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রস্তুত না করে গত ২৪মার্চ গভর্ণিং বডির ভোটের তফসিল ঘোষনা করেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ও প্রিজাইডিং কর্মকর্তা মো. তৌহিদুল ইসলাম। তফসিলে ২এপ্রিল থেকে ৪এপ্রিল পর্যন্ত মনোনয়ন পত্র প্রদান ও জমার তারিখ এবং ২০ এপ্রিল ভোট গ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করা হয়। পরে ভোটার তালিকা চুড়ান্ত না হওয়ায় তা ২দিন পিছানো হয়। পরবর্তীতে ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হলে দেখা যায়, সঠিক নাম ঠিকানা বিহীন অসংখ্য ভূয়া ভোটার, মরা ভোটার এবং প্রধান শিক্ষকের পছন্দের কিছু ভোটার পাওয়া যায়। আবার অনেক অভিভাবকদের ভোটার তালিকা থেকে বাদও দেওয়া হয়। যাদের স্বামী প্রবাসে থাকেন তাদের ভোটার তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত হলেও প্রধান শিক্ষকের পছন্দের এক প্রার্থীকে ভোটার করা হয়। এ ছাড়াও শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচনে শিক্ষকদের ভোটার তালিকায় ৭ জনকে অবৈধভাবে ভোটার করা হয়। যাদের নীতিমালা মোতাবেক এখনো শিক্ষক হিসেবে তালিকাভুক্ত হয়নি। আবার ভোটার তালিকায় নাম না থাকা সত্ত্বেও প্রধান শিক্ষকের পছন্দে ২নং ক্রমিকের সংরক্ষিত মহিলা অভিভাবক সদস্য প্রার্থী মারজাহান বেগমও প্রার্থী হয়েছেন ।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক বরাবর অভিযোগকারী আব্দুর রাজ্জাক বলেন, তোয়াহা স্মৃতি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক জায়েদ বিল্লাহ নিজের মনগড়া ভোটার তালিকা তৈরী করে তার পছন্দের লোক দিয়ে গভর্ণিং বডির নির্বাচন করতে চেয়েছিলেন। ওই প্রতিষ্ঠানের নির্বাচনে তার পছন্দের বাহিরে কোন প্রার্থী যেন অংশ গ্রহণ করতে না পারে এ বিষয়ে অনেক প্রার্থীকে সে নিরুৎসাহিত করেছেন। নির্বাচনে আমি একজন প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী হওয়া সত্ত্বেও আমাকে কোনো ভোটার তালিকা দেয়নি। বাধ্য হয়ে আমি জেলা প্রশাসক বরাবর অভিযোগ করেছি।

এ বিষয়ে তোয়াহা স্মৃতি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক একেএম জায়েদ বিল্লাহ বলেন, ভোটার তালিকায় কিছু মরা ভোটার ছিলো। বিষয়টি  আমাদের নজরে আসেনি। অন্যান্য অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি তা অস্বীকার করেন।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ও গভর্ণিং বডির নির্বাচনের প্রিজাইডিং কর্মকর্তা মো. তৌহিদুল ইসলাম ভোটার তালিকা সঠিকভাবে না করার কারণে ভোট স্থগিত হয়েছে বলে তিনি নিশ্চিত করেছেন।

 





আর্কাইভ