শিরোনাম:
ঢাকা, বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

Newsadvance24
মঙ্গলবার ● ২৬ এপ্রিল ২০২২
প্রথম পাতা » চট্টগ্রাম » প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহারের চাল গোয়ালঘরে, তদন্ত কমিটি গঠন
প্রথম পাতা » চট্টগ্রাম » প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহারের চাল গোয়ালঘরে, তদন্ত কমিটি গঠন
১৮০ বার পঠিত
মঙ্গলবার ● ২৬ এপ্রিল ২০২২
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহারের চাল গোয়ালঘরে, তদন্ত কমিটি গঠন

নিজস্ব প্রতিনিধি, নিউজ এ্যাডভান্স

---

কমলনগর (লক্ষ্মীপুর) : লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে গোয়ালঘর থেকে ভিজিএফ’র ৭ বস্তা জাল উদ্ধার করা হয়েছে। ঈদে দরিদ্রদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া এ উপহার চর মার্টিন ইউনিয়ন পরিষদ থেকে গোপনে গোয়ালঘরে এনে রাখা হয়।
মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) দুপুরে উপজেলার চর মার্টিন ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন রেখার বাপের বাড়ি থেকে ওই ৭ বস্তা চাল জব্দ করা হয়।
খবর পেয়ে উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা ও চরমার্টিন ইউনিয়নের তদারকি কর্মকর্তা (ট্যাগ অফিসার) মোর্শেদ আলম চাল জব্দ করেন। জব্দকৃত চাল হাজিরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে। বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আসলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান কৃষি কর্মকর্তা মো. আতিক আহমেদকে প্রধান করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন।
বিশ্বস্ত একাধিক সূত্র থেকে জানা যায়, সকাল থেকে চর মার্টিন ইউনিয়ন পরিষদে দরিদ্রদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ভিজিএফ’র চাল বিতরণ করা হয়। ইউপি চেয়ারম্যান ইউছুফ আলীর ঘনিষ্ঠজন স্থানীয় নুর হোসেনসহ তার লোকজন দিয়ে বেনামে টোকেনের মাধ্যমে চাল সংগ্রহ করে গোয়ালঘরে বস্তা ভরে রাখে তারা। এসময় বিষয়টি জানাজানি হলে চালের বস্তা রিকসায় করে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করা হয়। পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ৭ বস্তা চাল জব্দ করা হয়। তাৎক্ষণিক নুর হোসেন পালিয়ে যায়।
নুর হোসেন চর মার্টিন ইউনিয়নে ৫ নম্বর ওয়ার্ডের হারিছ সর্দার বাড়ির মনির হোসেনের ছেলে। সে চর মার্টিনের চেয়ারম্যান ইউছুফ আলীর চাল চালাচালির ডান হাত।
স্থানীয়রা জানান, এরআগেও বিভিন্ন সময়ে সরকারি চাল বিতরণের দিন একই কায়দায় চেয়ারম্যানের লোকজন চাল সংগ্রহ করে অন্যত্র নিয়ে বিক্রি করতো।স্থানীয়দের দাবী নুর হোসেন চেয়ারম্যানের লোক, তাকে আটক করে আইনের আওতায় আনা হলে আসল অপরাধীকে চিহ্নিত করা যাবে।
চরমার্টিন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন বলেন, নুর হোসেন এরআগেও কয়েক দাফে সরকারি চাল চালাচালি করেছে বলে স্থানীয়দের কাছে শুনেছি, এবার হাতে নাতে ধরেছি। নুর হোসেনকে জিজ্ঞাসা করলে সে চেয়ারম্যানের হয়ে চাল সংগ্রহ করেছে বলে জানিয়ে ঘটনাস্থল থেকে সটকে পড়ে। সকাল থেকে তিন রিকসা চাল গোয়াল ঘর থেকে অন্যত্র সরিয়ে নিয়েছে বলেও জানান আওয়ামী লীগ নেতা বেলায়েত।
প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ভিজিএফ’র চাল গোয়ালঘরে কেনো এ বিষয়ে জানতে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ইউছুফ আলীর কাছে একাধিকবার তার মুঠোফোন কল করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।
উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা ও চরমার্টিন ইউপির ট্যাগ অফিসার মোর্শেদ আলম বলেন, নুর হোসেন টোকেনর মাধ্যমে পরিষদ থেকে চাল সংগ্রহ করেছে। তবে একসাথে এতোগুলা চাল তার সংগ্রহে থাকা বেআইনি। রিকশাসহ চালগুলো জব্দ করা হয়েছে।
কমলনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. কামরুজ্জামান জানান, এ বিষয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্তের পর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।





আর্কাইভ