শিরোনাম:
ঢাকা, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১
---

Newsadvance24
বুধবার ● ১৫ মে ২০২৪
প্রথম পাতা » চট্টগ্রাম » কমলনগরে এইচএসসি’র ফরম ফিলাপে মোটা অঙ্কের টাকা আাদায়
প্রথম পাতা » চট্টগ্রাম » কমলনগরে এইচএসসি’র ফরম ফিলাপে মোটা অঙ্কের টাকা আাদায়
৩৮২ বার পঠিত
বুধবার ● ১৫ মে ২০২৪
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

কমলনগরে এইচএসসি’র ফরম ফিলাপে মোটা অঙ্কের টাকা আাদায়

নিজস্ব প্রতিনিধি, নিউজ এ্যাডভান্স

---

কমলনগর (লক্ষ্মীপুর) : লক্ষ্মীপুরের কমলনগরের হাজিরহাট উপকূল সরকারি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের অভিযোগ উঠেছে কলেজ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে । নিয়মের বাইরে গিয়ে বাধ্যতামূলক এই টাকা নেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা। অতিরিক্ত টাকা আদায় করলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশনা থাকলে আইনের তোয়াক্কা করছেন না তারা।

জানা যায়, ২০২৪ সালের এইচএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণে ব্যবহারিকসহ বোর্ড কর্তৃক নির্ধারিত ফি বিজ্ঞান শাখায় ২ হাজার ৬৮০ টাকা এবং মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় ২ হাজার ১২০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। কিন্তু হাজিরহাট উপকূল সরকারী কলেজ কর্তৃপক্ষ বিজ্ঞান শাখায় ৪ হাজার ১০০ টাকা এবং মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় ৩ হাজার ৭২০ টাকা করে আদায় করেছেন ।

কলেজ সূত্রে জানা যায়, এ বছর ওই কলেজে মোট ৬’শ ১৫ শিক্ষার্থী ফরম পুরণ করেছে। বিজ্ঞান শাখায় শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ১৪’শ ২০ এবং মানবিক ও ব্যবসা শিক্ষা শাখায় ১৬শ’ টাকা করে অতিরিক্ত টাকা আদায় করা হয়েছে। সে হিসেবে কলেজ কর্তৃপক্ষ এ বছর প্রায় ১০লাখ টাকা অতিরিক্ত আদায় করেছন বলে একটি সূত্র নিশ্চিত করেছেন। এর বাহিরেও পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে প্রবেশ পত্র, ব্যবহারিক ফি এবং পাশের পর প্রশংসা পত্র, মার্কসীট ও সনদ ফি নিচ্ছেন এ প্রতিষ্ঠান। যদিও সকল ফি নিয়েই ফরম পুরণের নির্দেশনা দেয় বোর্ড কর্তৃপক্ষ। কিন্তু এর কিছুই মানেন না তারা।

শিক্ষার্থী ও অভিবাবকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ফরম ফিলাপে কলেজ কর্তৃপক্ষ নির্ধারিত ফি’র বাহিরে অতিরিক্ত টাকা আদায় করছেন। অভিভাবকরা ঋণ করে ছেলে-মেয়েদের ফরম ফিলাপের টাকা দিয়েছেন। কেন অতিরিক্ত টাকা নেয়া হয়েছে এ বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছেন তারা।

বিষয়টি নিয়ে ফরম ফিলাপ কমিটির আহ্বায়ক প্রভাষক মো্ জাহাঙ্গীর আলমের কাছে জানতে চাইলে তিনি কথা বলতে রাজি হননি।

এ বিষয়ে হাজিরহাট উপকূল সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ মো: জাকির হোসেন বলেন,  আমরা অভিভাবকদের সাথে পরামর্শ করে কিছু টাকা বাড়তি নিয়েছি। ওই টাকা ফরম পূরণের পর অতিরিক্ত ক্লাস এবং মডেল টেস্ট এর পেছনে খরচ করা হবে।

কমলনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুচিত্র রঞ্জন দাস বলেন, ফরম পূরণে নির্ধারিত ফি’র বাহিরে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের কথা তিনি শুনেছেন। বিষয়টি তিনি সংশ্লিষ্টদের অবহিত করেছেন।





আর্কাইভ