শিরোনাম:
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯
---

Newsadvance24
বৃহস্পতিবার ● ২৮ জুলাই ২০২২
প্রথম পাতা » চট্টগ্রাম » কমলনগরে দোকানঘর দখলের অভিযোগ আ’লীগের সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে
প্রথম পাতা » চট্টগ্রাম » কমলনগরে দোকানঘর দখলের অভিযোগ আ’লীগের সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে
২৯৫ বার পঠিত
বৃহস্পতিবার ● ২৮ জুলাই ২০২২
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

কমলনগরে দোকানঘর দখলের অভিযোগ আ’লীগের সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে

নিজস্ব প্রতিনিধি, নিউজ এ্যাডভান্স

---

কমলনগর (লক্ষ্মীপুর) :  লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে এক নিরীহ পরিবারের দোকানঘর দখলের অভিযোগ উঠেছে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এড. একে এম নুরুল আমিন রাজুর বিরুদ্ধে। এর প্রতিবাদে ম্ঙ্গলবার সন্ধ্যায় সংবাদ সম্মেলন এ অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী পরিবার। এর আগে গত শনিবার (২৩জুলাই) ভোররাতে  উপজেলার খায়েরহাট বাজারে দীর্ঘ দিন থেকে ভোগ দখলে থাকা দোকান ভিটি তার ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে দখল করেন। খবর পেয়ে ভুক্তভোগীর পরিবারের মো. মোস্তফা রোববার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ করেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ কামরুজ্জামান সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও কমলনগর থানাকে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন। পরে কমলনগর থানা পুলিশ ও ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার সরজমিনে গিয়ে কাজ বন্ধ করে দেন।

সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী পরিবারের মো. মোস্তফা বলেন, উপজেলার পূর্ব চরফলকন মৌজার খায়েরহাট বাজারের  এক নম্বর খাস খতিয়ানের ৪০৮২ দাগে বর্তমান আরএস জরিপের ৭৮১২ দাগে ২ শতাংশ জমিতে দোকান ভিটি দীর্ঘ ৪৫বছর থেকে ভোগ দেখল করে আসছি। এ নুরুল আমিন রাজু উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও পাটারিরহাট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হওয়ার পর আমাদের দোকান ভিটির পিছনের এক শতাংশ দখল করে টয়লেট নির্মাণ করেন। বিষয়টি নিয়ে আমি জেলা প্রশাসক ও উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করেও কোন প্রতিকার পায়নি। সম্প্রতি তিনি ফের উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হওয়ার পর নতুন করে সামনের এক শতাংশ দোকানঘর সকল টিন মো. শরীফসহ তার ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে রাতের আধারে খুলে নিয়ে যায়। ওই সময় তিনি পাকা ভবনের কাজ শুরু করেন। পরে আমি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও কমলনগর থানায় একটি অভিযোগ দেই। অভিযোগের ভিত্তিতে উপজেলা প্রশাসন কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিলেও নুরুল আমিন রাজু পুনরায় ওই জায়গায় পাকা ভবন করার পায়তারা করছেন।

তিনি আরো বলেন, আমার দুই দোকানে জন্য এ রাজুর চেয়ারম্যানের দেওয়া ট্রেড লাইসেন্স আছে এবং আমি একসনা বন্দোবস্তের জন্য জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদনও করেছি। এ ছাড়াও  রাজু খায়েরহাট বাজারে নিরীহ অনেক লোকের জমি দখল করে নিয়েছে। তার বিরুদ্ধে সরকারের পক্ষ থেকে মামলাও করা হয়েছে। যা এখনো বিচারাধীন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পাটারিরিরহাট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এড. একেএম নুরুর আমিন রাজু বলেন,  বাজারের দোকানভিটি নিয়ে দু’পক্ষের  পারিবারিক দ্বন্ধ চলছে। বিষয়টি আমি সমাধানের চেষ্টা করছি। আমাকে নিয়ে মো. মোস্তফা অপপ্রচার চালাচ্ছে।

কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ সোলাইমান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ পাঠিয়ে বিরোধকৃত জায়গায় কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ কামরুজ্জামান বলেন, অভিযোগের ভিত্তিতে সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও কমলনগর থানাকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।





আর্কাইভ